Text size A A A
Color C C C C
পাতা

কী সেবা কীভাবে পাবেন

ফায়ার লাইসেন্স (অগ্নি-দুর্ঘটনা প্রতিরোধমূলক পরামর্শ সেবা)ঃ

 

১।         স্থানীয় সহকারী পরিচালক/উপ-পরিচালক বরাবর ফায়ার সার্ভিসের নির্ধারিত       ফরম পূবণ           পূর্বক নিম্নবর্ণিত কাগজ পত্রসহ আবেদন করতে হবে।

 

(K)           ট্রেড লাইসেন্স।

(L)            প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব ভবনে ব্যবসা পরিচালনা হলে পৌরসভা কর্তৃক প্রতিষ্ঠানের স্থাবর/অস্থাবর সম্পত্তি বার্ষিক মূল্যায়ন পত্র।

(M)         ভাড়া বাড়িতে ব্যবসা হলে ভাড়ার চুক্তিপত্র।

(N)           রাজউক/পৌরসভা কর্তৃক অনুমোদিত স্থাপনার নকশা।

(O)           প্রতিষ্ঠানটি লিমিটেড কোম্পানী হলে Memorandum of Articles (Certificate ofIncorporation)

(P)            প্রতিষ্ঠান সংক্রামত্ম স্থানীয় জনপ্রতিনিধি কর্তৃক অনাপত্তি সনদ।

(Q)           বহুতল বা বাণিজ্যিক ভবন হলে ফায়ার সার্ভিস নির্ধরিত তথ্য বিবরণী।

 

২।         আবেদন প্রাপ্তির পর ০৭ (সাত) কর্মদিবসের মধ্যে অধিদপ্তর কর্তৃক নিয়োজিত     পরিদর্শকের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করা হয়।

 

৩।         পরিদর্শনের পর অগ্নি প্রতিরোধমূলক পরামর্শ প্রদান করা হয়।

 

৪।         পরামর্শ মোতাবেক কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করার পর পুনরায় পরিদর্শন করা হয়।

 

৫।         পরিদর্শন যুক্তিসঙ্গতভাবে সমেত্মাষজনক হলে সর্বোচ্চ ৯০ দিনের মধ্যে লাইসেন্স প্রদান করা হয়।

 

৬।         যুক্তিসঙ্গত কারনে লাইসেন্স প্রদানের বিষয়ে সমত্মষ্ট না হলে মহা পরিচালক লাইসেন্সর       আবেদন প্রাপ্তির ১২০ (একশত বিশ) দিনের মধ্যে আবেদনকারীকে     শুনানীর সুযোগ       প্রদান করবেন।

 

৭।         মহাপরিচালকের নিকট হতে ক্ষমতাপ্রাপ্ত কোন কর্মকর্মার কোন সিদ্ধামেত্ম কোন   ব্যক্তি     বা          প্রতিষ্ঠান সংক্ষুব্ধ হলে ৩০ (ত্রিশ) দিনের মধ্যে বিষয়টি পুনঃবিবেচনার জন্য   মহাপরিচালকের নিকট আবেদন করবেন।

 

৮।         উক্ত আবেদন প্রাপ্তির ৩০ (ত্রিশ) দিনের মধ্যে মহাপরিচালক সিদ্ধামত্ম গ্রহণ         করবেন।

 

৯।         উক্ত বিষয়ে মহাপরিচালকের সিদ্ধামেত্ম সংক্ষুব্ধ ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান নির্ধারিত ফি   প্রদান      সাপেক্ষে সরকারের নিকট আপীল করতে পারবেন।

 

১০।        আপীল প্রাপ্তির ৬০ (ষাট) দিনের মধ্যে সরকার তৎসম্পর্কে চূড়ামত্ম সিদ্ধামত্ম প্রদান            করবেন।

 

        বহুতল বাণিজ্যিক ভবনের ছাড়পত্রঃ

 

১।         অগ্নি প্রতিরোধে নির্বাপন আইন ২০০৩ এর ৭ নং ধারা অনুসারে অনূর্ধ ৭ তলা       ভবনের   বা          বানিজ্যিক ভবনের অগ্নি প্রতিরোধমূলক ছাড়পত্র প্রদান করা হয়।

 

২।         স্থানীয় কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে বা সরাসরি মহাপরিচালক বরাবর সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি বা     প্রতিষ্ঠান আবেদন করবেন।

 

৩।         আবেদনের সাথে ভবনের নকশা ও দলিল প্রদান করবেন।

 

৪।         অতঃপর অত্র অধিদপ্তর কর্তৃক মনোনীত পরিদর্শক ০৭ (সাত) কর্মদিবসের         মধ্যে      সংশ্লিষ্ট ভবন পরিদর্শন করবেন।

 

৫।         পরিদর্শনের পর অগ্নি প্রতিরোধমূলক পরামর্শ প্রদান করা হয়।

 

৬।         পরামর্শ মোতাবেক কর্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করলে শর্তসাপেক্ষে পরবর্তী ০৭            (সাত)     কর্মদিবসের মধ্যে ছাড় পত্র প্রদান করা হয়।

 

৭।         পরিদর্শন যুক্তিসঙ্গত কারণে সমেত্মাষজনক না হলে ভবন ব্যবহারের অনুপযোগী   মর্মে       মহাপরিচালক ঘোষণা করতে পারেন।

 

৮।         ভবন ব্যবহারের অনুপযোগী ঘোষণার কারণে কোন ব্যক্তি সংক্ষব্ধ হলে তিনি       উক্তরূপ   ঘোষনার ৩০ (ত্রিশ) দিনের মধ্যে সরকারের নিকট আপীল করতে পারবেন।

 

৯।         উক্ত আপীল প্রাপ্তির ৬০ (ষাট) দিনের মধ্যে সরকারের চুড়ামত্ম সিদ্ধামত্ম গ্রহণ      করবেন।

 

        এ্যাম্বুলেন্স সার্ভিসঃ

 

১।         অত্র অধিদপ্তর স্থানীয়ভাবে বা আমত্মঃ জেলা পর্যায় রোগী পরিবহনের নিমিত্তে       জনসাধারণের জন্য এ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস প্রদান করে থাকে।

 

২।         এ্যাম্বুলেন্স সার্ভিসের আওতায় শুধুমাত্র রোগীকে বাসা থেকে হাসপাতালে অথবা     দুর্ঘটনার স্থান থেকে হাসপাতালে স্থানামত্মর করা হয়।

 

৩।         এ সেবার জন্য স্থানীয় পর্যায়ে বা পৌর এলাকায় ফোনের বা বার্তাবাহকের মাধ্যমে   এ্যাম্বুলেন্স কল গ্রহণ করা হয়।

 

৪।         আমত্মঃ জেলা পর্যায়ে বা দূরবর্তী কলের ক্ষেত্রে রোগী পরিবহনের জন্য নির্ধারিত    ফরম      পূবন পূর্বক পূর্ব অনুমোদন নিতে হয়।

 

৫।         রোগী পরিবহনের জন্য ভাড়ার হার নিম্নরূপঃ

[           দেশের সকল মেট্রোপলিটন শহর এলাকাসহ সকল পৌর এলাকায় ১ কিলোমিটার হতে ৮  

          কিলোমিটার পর্যমত্ম ১০০ টাকা (নির্ধারীত)।

[         ১ কিলোমিটার হতে ১৬ কিলোমিটার পর্যমত্ম প্রতি কল ১৫০ (একশত পঞ্চাশ) টাকা ।

[         দূরবর্তী/আমত্মঃজেলা কলের ক্ষেত্রে প্রতি কিলোমিটার ০৯ (নয়) টাকা হারে।

 

৬।         এ্যাম্বুলেন্স সার্ভিসের আওতায় লাশ এবং সংক্রামক ব্যাধির রোগী বহন করা হয় না।

 

অগ্নি প্রতিরোধমূলক মহড়া,পরামর্শ ও প্রশিক্ষন সেবাঃ

 

১।         উক্ত সেবা গ্রহণের জন্য স্থানীয় কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে বা সরাসরি মহাপরিচালক বরাবর

          আবেদন করতে হয়।

২।         আবেদন প্রাপ্তির পর সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানকে অত্র অধিদপ্তর আর্থিক সংশ্লেষ ও অন্যান্য শর্তাবলী

         সহ প্যাকেজ প্রসত্মাব প্রেরন করে।

৩।         সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান উক্ত শর্তপালনে সম্মত হলে অত্র অধিদপ্তরের মনোনিত কর্মকর্ত সংশ্লিষ্ট   

          প্রতিষ্ঠানের সহিত প্রয়োজনীয় সমন্বয়সাধন পূর্বক নিম্নলিখিত সেবা প্রদান করে থাকে।

 

(K)           অগ্নি প্রতিরোধ ও নির্বাপন বিষয়ে পরামর্শ প্রদান।

(L)            অগ্নি প্রতিরোধ ও নির্বাপন বিষয়ে প্রশিক্ষন প্রদান।

(M)         অগ্নি প্রতিরোধ ও নির্বাপন বিষয়ে মহড়া পরিচালনা।